Home » Assignment Answer » Class 6 Assignment Answer 2021 – (বাংলা,ধর্ম)

Class 6 Assignment Answer 2021 – (বাংলা,ধর্ম)

Class 6 Assignment Answer 2021 of 1st week avilable now. Secondary school student need to attend 1st week assignment in 2021. In 16 March 2021, Authority of Directorate of the secondary & higher education notice about new assignment notice on their site http://www.dshe.gov.bd. All Assignment solution for class 6 of 1st week found on ejobscircular.com. Class six Bangla, English, Math etc. subject assignment solution given below.

Every student will need to attend or complete their class 6 assignment in just 7days. For 1st week class six student have to complete 3 subject. There is Bangla, Bangladesh o bisho porichoy & Biggan subject selected for 1st week assignment.

Class 6 Assignment 1st week Answer

1st week assignment of class 6 already started. Student have to finish their 1st week assignment answer then submit it to their school. All Subject Assignment of class six answer will be availbe in this webpage. Before start doing your home work download Class 6 Assignment Syllabus from dshe.gov.bd. We upload weekly based subject wise Assignment pdf file and you may also download it from ejobscircular.com. Beside upload Class 6 Assignment Syllabus we also answer of 1st week home work for you. Keep reading below for your assignement solution.

Class 6 Bangla Assignment Answer 1st week – ৬ষ্ঠ শ্রেণির বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট সমাধান

This post is very helpful to the student who want to complete class 6 Bangla assignment of 1st week in 2021. Read below class six assignment answer.

১. নিচের রচনাংশটুকু চলিত রীতিতে রূপান্তর কর:

তারপর স্বীয় দূত পূর্বে যে টাকওয়ালা ছিল, তাহার কাছে গেলেন। সেখানে গিয়া আগের মতো একটি গাভি চাহিলেন। সেও ধবল রোগীর মতো তাহাকে কিছুই দিলনা । তখন স্বর্গীয়দূত বলিলেন, আচ্ছা, যদি তুমি মিথ্যা বলিয়া থাক, তবে যেমন ছিলে আল্লাহ তোমাকেআবার তেমনি করিবেন।

তারপর স্বর্গীয়দূত পূর্বে যে অন্ধছিল, তাহার কাছে গিয়াবলিলেন, আমি এক বিদেশি । বিদেশে আমার সম্বল ফুরাইয়া গিয়াছে। এখন আল্লাহর দয়া ছাড়া আমার দেশে পৌছিবার আর কোনো উপায় নাই। যিনি তোমার চক্ষু ভালো করিয়া দিয়াছেন, আমি তোমাকে সেই আল্লাহর দোহাই দিয়া একটি ছাগল চাহিতেছি; যেন আমি সেই ছাগল-বেচা টাকা দিয়া দেশে ফিরিয়া যাইতে পারি ।

উত্তর : তারপর স্বর্গীয় দূত পূর্বে যে টাকওয়ালা ছিল, তার কাছে গেলেন। সেখানে গিয়ে আগের মতাে একটি গাভি চাইলেন। সেও ধবল রােগীর মতাে তাকে কিছুই দিলনা। তখন স্বর্গীয়দূত বললেন, আচ্ছা, যদি তুমি মিথ্যা বলে থাক, তবে যেমন ছিলে আল্লাহ তােমাকে আবার তেমন করবেন।

তারপর স্বর্গীয়দূত পূর্বে যে অন্ধছিল, তার কাছে গিয়ে বললেন, আমি এক বিদেশি। বিদেশে আমার সম্বল ফুরিয়ে গিয়েছে । এখন আল্লাহর দয়া ছাড়া আমার দেশে পৌঁছানোর আর কোনাে উপায় নেই। যিনি তােমার চোখ ভালাে করে দিয়েছেন, আমি তােমাকে সেই আল্লাহর দোহাই দিয়ে একটি ছাগল চাচ্ছি; যেন আমি সেই ছাগল-বেচা টাকা দিয়ে দেশে ফিরে যেতে পারি।

Class 6 Islam Assignment Answer 1st week 2021 – ৬ষ্ঠ শ্রেণির ১ম সপ্তাহের ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট

Class 6 Islam Assignment Answer 1st week 2021
Class 6 Islam Assignment Answer 1st week 2021

তোমার চারপাশের নানা নিদর্শন উত্লেখসহ | তায়্যিবা ও কালিমা শাহাদাতের আলোকে আল্লাহ তায়ালার একত্ববাদের উপর একটি প্রতিবেদন তৈরি কর।

তাওহিদ আরবি শব্দ। বাংলা ভাষায় একে বলা হয় একত্ববাদ। আল্লাহ তায়ালাকে এক ও অদ্বিতীয় সত্তা হিসেবে বিশ্বাস করাকে তাওহিদ বা একত্ববাদ বলা হয়।আল্লাহ তায়ালাই একমাত্র সৃষ্টিকর্তা, পালনকর্তা, রিজিকদাতা। তিনি ব্যতীত ইবাদতের যোগ্য কেউ নেই। তিনিই হলেন একমাত্র ইলাহ। আল্লাহ তায়ালার প্রতি এরূপ বিশ্বাসই হলো তাওহিদ।

আমাদের চারপাশে সুন্দর সুন্দর ফুল, ফল, গাছপালা, তরুলতা, পশুপাখি ইত্যাদি রয়েছে। এছাড়া রয়েছে নদী-নালা, পাহাড়-পর্বত, বন-জঙ্গল, সাগর-মহাসাগর।

আমরা খালি চোখে দেখতে পাই না এমন অনেক বস্তু এবং প্রাণী ও রয়েছে। এসব কিছুই সৃষ্টি জগতের অন্তর্গত।এগুলো সৃষ্টিকর্তা ছাড়া নিজে থেকে সৃষ্টি হয়নি। নিশ্চয়ই একজন স্রষ্টা এগুলো সৃষ্টি করেছেন। তিনি হলেন মহান আল্লাহ। তিনি সবকিছু সৃষ্টি করেছেন। তার কোন সাহায্যকারী প্রয়োজন হয়নি।

কালিমা তায়্যিবা অর্থ হলো পবিত্র বাক্য। এটি তাওহিদ, ইমান ও ইসলামের মূলভিত্তি।
উচ্চারণ: লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ।

অর্থ: আল্লাহ ছাড়া কোনো ইলাহ বা মাবুদ নেই, মুহাম্মদ (স.) আল্লাহর রাসূল।

এ কালিমা স্বীকার না করলে কেউ ইসলামে প্রবেশ করতে পারে না। এ কালিমার দুটি অংশ।

প্রথম অংশে আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস ও একত্ববাদের কথা বলা হয়েছে।
আর দ্বিতীয় অংশে মহানবি হযরত মুহাম্মদ (স.)-এর প্রতি বিশ্বাসের কথা বলা হয়েছে।

তাওহীদের বিশ্বাস এর জন্য প্রয়োজন পবিত্র অন্তর। অর্থাৎ প্রথমে অন্তর থেকে সব রকমের ভুল ও ভ্রান্ত বিশ্বাস দূর করতে হবে। ‘লা-ইলাহা’ দ্বারা এটাই করা হয়।
অতঃপর ‘ইল্লাল্লাহু’ দ্বারা আল্লাহ তায়ালার প্রতি বিশ্বাস স্থাপন করা হবে।

চারপাশের নানা নিদর্শন উল্লেখসহ আল্লাহর একত্ববাদের উপর প্রতিবেদন
কালিমা শাহাদাত হলো- সাক্ষ্য দানের বাক্য।
অর্থাৎ, এ কালিমা দ্বারা ইমানের সাক্ষ্য দেওয়া হয়। এ কালিমা উচ্চারণের মাধ্যমে আল্লাহ তায়ালার একত্ববাদ ও মুহাম্মদ (স.)-এর রিসালাতের সাক্ষ্য প্রদান করা হয়।

উচ্চারণ: আশহাদু আল্ লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহদাহু লা-শারিকালাহু ওয়া আশহাদু আন্না মুহাম্মাদান আবদুহু ওয়া রাসুলুহু।

অর্থ: আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আল্লাহ ছাড়া আর কোনো ইলাহ নেই। তিনি একক, তাঁর কোনো শরিক নেই। আমি আরও সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, নিশ্চয়ই মুহাম্মদ (স.) তাঁর (আল্লাহর) বান্দা ও রাসুল।

এ কালিমাও দুটি অংশে বিভক্ত।
এর প্রথম অংশে তাওহিদ বা একত্ববাদের সাক্ষ্য দেওয়া হয়।
আর দ্বিতীয় অংশে মুহাম্মদ (স.)-এর রিসালাতের স্বীকৃতি দেওয়া হয়।
কালিমা শাহাদাত এর মাধ্যমে আমরা এ দুটো কাজই করতে পারি।
তা ছাড়াও মহান আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ ও হযরত মুহাম্মদ (স.)-এর প্রতি আমাদের বিশ্বাসের প্রমান দিতে পারি।
তাওহিদ বা আল্লাহ তা’আলার একত্ববাদে বিশ্বাস আকাইদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

ইসলাম ও ঈমানের মূল ভিত্তি হলো তাওহীদ।

তাওহীদে বিশ্বাস না করলে কেউ মুমিন বা মুসলিম হতে পারে না।সকল নবী-রাসুল (আ.) তাওহীদের দাওয়াত দিয়েছেন। সকলেই ঘোষণা করেছেন যে, আল্লাহ তায়ালা এক ও অদ্বিতীয়। তাঁর তুল্য কিছুই নেই।তাওহীদে বিশ্বাস মানুষকে দুনিয়াতে কল্যাণ দান করে। আর তাওহীদে বিশ্বাসীগণ আখিরাতে জান্নাত লাভ করবে।

Assignment Solution for class six of 1st week completed. We are trying to solved Class 6 second week All Assignment in this page. Stay with us for next Assignment answer.

Leave a Comment

Your email address will not be published.